দুদণ্ড অবসর মেলেনি
তৈমুর মল্লিক

 
জানি একদিন হারিয়ে যাব আমি, হারাবেনা আমার এই কবিতা, নিশ্চিত সেদিন খুঁজবে আমায় । পাবে না , পাবে শুধু পরাজিত এক পৃথিবী ।

দুদণ্ড অবসর মেলেনি পৃথিবীর শয্যাশায়ী হতে
মধ্যাকর্ষন নয়, লৌহ কোন শিকল নয়, মহাবীর রুস্তমের গদার আঘাতেও নয়
নিরঙ্কুশ স্বার্থপরতা, ক্ষমতার মোহ, মানবতার অবক্ষয় আর কালো একজোড়া জুতো
টেনে হিঁচড়ে ভুলন্ঠিত করেছে তাকে ।

পরাজয়ের ক্ষুব্ধ পতিক্রিয়ায় লজ্জায় ঘৃণায় ম্রিয়মাণ গোলোক
সময়ের দুদন্ড অবসর পায়নি –
অবসর পায়নি শেষ বারের একফোঁটা অশ্রু তাদের দান করতে
যারা আজও একটু শান্তি চায়, শীতল বাতাস চায় ।

বাতাসে শীশার আস্তরণ, কার্বনমনোক্সাইড রক্তে নিয়ে
একটু একটু করে গড়েতোলা আজকের বাসরে ফুল মেলেনি ,
রক্তের নহর, আর ভাঙ্গা পাঁজরের গল্পে
সমাধি রচিত হয়েছে – ঠুকে দেয়া হয়েছে কফিনের শেষ পেরেক দন্ড ।

অবসর মেলেনি তার – সচেষ্ট যুদ্ধ যাত্রায় পরাজিত তাকে হতেই হলো
ফিরে যাওয়ার পথ বুঝি রুদ্ধ হয়ে গেছে – উঠে দাঁড়াবার ক্ষমতা বুঝি হারিয়ে গেছে
যৌনতার কুৎসিত রাস্তায় এসিড নিক্ষেপ করে পূনর্জন্ম আবার হবে কি না জানিনা ,
শুধু জানি – অবসরের আক্ষেপ চিরস্থায়ী নয়, যদিও আমার অবস্থান হয়তো থাকবে না ।

আমায় তোমরা কবি বলো না , এ আমার কাব্য নয় – চির পরাজয়ের গান ,
খুঁজে দেখো নিশ্চিত সেখানে পাবে- পরাজয় হয়েছে তোমার , আমার, হারিয়েছে সম্মান ।

Leave a Reply

  • (not be published)